fbpx
32.2 C
Barisāl
Wednesday, May 25, 2022

বিয়ের প্রলোভনে যুবতীকে ধর্ষণ : পুত্র সন্তান প্রসব

স্প্রেমের সম্পর্কে বিয়ের প্রলোভনে যুবতীকে একাধিকবার ধর্ষণে অন্তঃস্বত্তা, অতঃপর পুত্র সন্তান প্রসবের পর অস্বীকার করায় দীর্ঘদিন ছেলের পিতৃ পরিচয়ের দাবিতে বিভিন্নস্থানে ধর্ণা দিয়ে ব্যর্থ হয়ে অবশেষে থানা পুলিশের দারস্থ হয়েছেন এক যুবতী মা।

এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযুক্ত প্রেমিক হৃদয় ফকিরকে গ্রেফতার করেছে। সোমবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত লম্পট ধর্ষককে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার জঙ্গলপট্টি গ্রামের।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গৌরনদী মডেল থানার চৌকস এসআই মোঃ খায়রুল আলম এজাহারের বরাত দিয়ে জানান, ওই গ্রামের এক দিনমজুরের কন্যার (২৪) সাথে গত ছয় বছরপূর্বে প্রতিবেশী বাচ্চু ফকিরের পুত্র হৃদয় ফকিরের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরবর্তীতে বিয়ের প্রলোভনে জোরপূর্বক হৃদয় ওই যুবতীর সাথে একাধিকবার শারিরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এতে ওই যুবতী অন্তঃস্বত্তা হয়ে পরে।

পরবর্তীতে প্রেমিক হৃদয়কে বিয়ের জন্য চাঁপ প্রয়োগ করা হলে সে (হৃদয়) ঢাকায় পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে গত দুইবছর পূর্বে ওই অন্তঃস্বত্তা প্রেমিকা একটি পুত্র সন্তান প্রসব করে।

এসআই মোঃ খায়রুল আলম আরও জানান, ওই যুবতী তার পুত্রের পিতৃ পরিচয়ের দাবিতে প্রথমে হৃদয়ের বাড়িতে গিয়ে উঠলেও প্রেমিক হৃদয় ফকির ও তার পরিবারের লোকজন তাদের মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। পরবর্তীতে এলাকার প্রভাবশালীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে ব্যর্থ হয়ে রবিবার রাতে থানা পুলিশের দ্বারস্থ হন।

এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই থানায় ধর্ষণ মামলা দায়েরের পর তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত হৃদয় ফকিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ