fbpx
27.8 C
Barisāl
Sunday, September 26, 2021

সংস্কার কাজ শেষ করার দেড়মাসের মধ্যেই গৌরনদীতে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ঢালাই’র পিচ ও পাথর উঠে খানাখন্দ

ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক সংস্কার কাজে শুরু থেকেই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নানান অনিয়ম, দূর্নীতি ও নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ ছিল। ২০১৭ সালের মার্চ মাসে কাজ শেষ করার কথা থাকলেও সময়মত কাজ শেষ করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। জুন মাসে কাজ শেষ হলেও দেড় মাস যেতে না যেতেই সড়কটির অধিকাংশ স্থানেই পুনঃরায় খানাখন্দ পরিনত হয়েছে।
বরিশাল সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল সড়ক ও জনপথ বিভাগ ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ভূরঘাটা বাসষ্ট্যান্ড থেকে উজিরপুরের জয়শ্রী পর্যন্ত ২৩ কিলোমিটর সড়ক দুই পাশে ৬ ফুট সম্প্রসারন ও সংস্কারের জন্য ২০১৬-২০১৭ই অর্থ বছরে ৩২ কোটি টাকার দুটি প্রকল্প গ্রহন করে পরে তা বাড়িয়ে ৪৮ কোটি টাকা করা হয়। প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ পান এম,এম বিল্ডার্স এবং এম,এস,এ,এম,পিজে,ভি লিঃ নামে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। গত ৩০ জুন কাজ শেষ করে চুড়ান্ত বিল নেন। দেড় মাস যেতে না যেতেই সড়কটি পুনরায় খানাকন্দে পরিনত হয়েছে।
দেখা গেছে, জয়শ্রী থেকে ভূরঘাটা সড়কের অধিকাংশ স্থান্ েছোট বড় গর্ত। সড়কের অনেক স্থানে রাস্তা ফেটে গেছে। আবার কোথাও কোথাও ডেবে গেছে। ২৩ কিলোমিটার সড়কের ৬টি স্পটে জোড়াতালি দিতে কাজ করেছেন ঠিকাদারের লোকজন। আশোকাঠী ফিলিং ষ্টেশন থেকে হরিসোনা পর্যন্ত রাস্তা ফেটে গেছে এবং ছোট ছোট গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। হরিসোনা থেকে কাসেমাবাদ মাঝারি ধরনের ও কাসেমাবাদ থেকে মাহিলাড়া গোটা রাস্ত জুড়ে হাজারো গর্ত। এ সময় বাটাজোর এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য মো. ইদ্রিস আলী (৫০) ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কাজ শেষ না হতেই সেই পুরানো খানাখরন্দ পরিনত হযেছে। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান অনিয়ম ও দূর্নীতি করে নামে মাত্র কাজ করে বরাদ্দের টাকা ভাগাভাগি করে নেওয়ায় সড়কের বেহাল দশা। চালক সেলিম সরদার (৫৫) কেরামত হোসেন (৪৮) বলেন, গত দুই বছর ধরে রাস্তায় দূর্ভোগ পোহাচ্ছি।
আল্লার মসজিদ থেকে টরকী পর্যন্ত প্রায় দেড় শতাধিক গর্ত ভরাট করে জোড়াতালি দেওয়া হয়েছে। কটকস্থল এলাকায় দেখা গেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজন বিনষ্ট হওয়া সড়ক মেরামত করছে। এ সময় শ্রমিক বাদশা (২৫) বলেন, কাজ শেষ করে চলে গেছি নতুন করে গর্ত হওয়ায় টলি ভর্তি করে মাল এনে মেরামত করে বাস চলাচলে সমস্যা দূর করছি। মেসার্স এম,এস,এ,এম,পিজে,ভি লিঃ মালিক মো. সোহরাব আলী বলেন, সড়কের ফাউ-েশনই খারাপ। উপরে যতই ভাল কাজ করা হ্কো রাস্তা টিকবে না। একই দাবি করে আরেক ঠিকাদার মেসার্স এম,এম বিল্ডার্সের মালিক মো. নাসির উদ্দিন আহম্মেদ ।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ