fbpx
25.5 C
Barisāl
Friday, April 16, 2021

গৌরনদীতে ভূমিদুস্য কর্তৃক সরকারী খাস জমি দখল করে ঘর উত্তোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পিংলাকাঠি গ্রামের হাজ¦ীবাড়ীতে একদল ভূমি দুস্য সরকারী খাস জমি জোরপূর্বক জমি দখল করে মাটি কাটা, বৃক্ষরোপনসহ ঘর উত্তোলন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
স্থানীয় ভূমি অফিস সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার নলচিড়া ইউনিয়নের জেএল ১৫৬ নং পিংলাকাঠী মৌজার ২৪ ও ৩১ নং খতিয়ানের এসএ ৩৪৯০,৩৫৭৫ ও ৩৪৯১ নং দাগের ৩২ শতাংশের রেকর্ডিয় মালিক মৃত বনমালী কৃষ্ণের পুত্র অমল কৃষ্ণ ও তপন কৃষ্ণ। অমল কৃষ্ণ ও তপন কৃষ্ণ ১৯৭৪ সালের ২৩ ফ্রেরুয়ারি একই গ্রামের মৃত হামেজদ্দীন হাওলাদারের পুত্র দলিল উদ্দিন হাওলাদারের কাছে ছাপ কবলা মূলে ক্রয় করেন। (যার দলিল নং ৬০৮ ও ৬০৯)। দলিলউদ্দিন হাওলাদার জমি ক্রয়ের পর ৪০১জি মিউটিশন করে ভোগ দখল করেন। তার মৃত্যুর পর তার পুত্র এমএ মন্নান হাওলাদারও ভোগ দখল করে আসছেন। এমএ মন্নান হাওলাদার অভিযোগ করেন, অজ্ঞাত কারণে তাদের উক্ত জমি অর্পিত সম্পত্তি (ভিপি) অর্šÍরভূক্ত হয়। পরবর্তীতে ভিপি অবমুক্ত করার জন্য এমএ মন্নান হাওলাদার ২০১৪ সালের ২ ফ্রেরুয়ারি বরিশাল (খ) তপছিল ট্রাইব্যুনাল এবং বরিশাল জেলা জজ আদালতে মামলা করেন (যার নং ০২/১৪)। যা বিচারাধীন আছে। তিনি (মন্নান হাওলাদার) আরো অভিযোগ করেন তার ভোগ দখলিও জমির উপর লোপট দৃষ্টি পরে প্রতিবেশী ইউসুব আলী সরদারের পুত্র ভূমি দুস্য আবুল কালাম সরদার গংদের। ভূমি দুস্য কালাম গং একটি ভূয়া ডিগ্রি করেন। পরবর্তীতে কালাম গংরা জোর পূর্বক তার জমির মাটি কেটে ঘর ও টয়লেট উত্তোলন করে এবং গাছের চারা রোপন করে। এ ব্যাপারে মন্নান গত ৭ ডিসেম্বর জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরে কালাম গংরা ক্ষিপ্ত হয়ে নানা ধরনের ভয়ভিতি প্রদর্শনসহ জীবন নাশের হুমকি প্রদান করছেন।
অভিযোগের ব্যাপারে একাধিকবার আবুল কালাম সরদারের সাথে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায় নি। কালামের ভাতিজা মোঃ রিয়াজ সরদার অভিযোগ অস্বীকার করে মুঠো ফোনে বলেন, ‘উক্ত সম্পত্তির আমরা বৈধ মালিক। এমএ মন্নান হাওলাদারের সাথে এ জমি নিয়ে কোন বিরোধ নেই।
এ ব্যাপারে গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মনিরুল ইসলাম এমএ মন্নান হাওলাদারের লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যত্তা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ