fbpx
25.3 C
Barisāl
Thursday, April 22, 2021

বার্থীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই জন নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে বুধবার সকালে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বার্থী তাঁরা মায়ের (কালী) মন্দিরের কাছে যাত্রাবাহী লোকাল বাসের চাপায় ঘটনাস্থলেই পথচারী এলাহী অটো রাইস মিলের শ্রমিক নাঈম ফকির (২৫) নিহত ও বাসের ধাক্কায় এক ভ্যান চালক আহত হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভ্যান চালক বাচ্চু মিয়া হাওলাদারকে (৩৫) বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত নাঈম ফকির পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার ঘোষকাঠি গ্রামের বাবুল ফকিরের ছেলে। বিষয়টি গৌরনদী হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ শাহাদাত হোসেন নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, উপজেলার ভূরঘাটা থেকে ছেড়ে আসা বরিশালগামী যাত্রীবাহী লোকাল বাস (বরিশাল-জ-০৫-০০২৭) বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বার্থী তাঁরা মায়ের মন্দির এলাকা অতিক্রম কালে পথচারী বার্থী এলাহী অটো রাইস মিলের শ্রমিক নাঈম ফকিরকে চাপা দেয়। এ সময় বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাংস বোঝাই একটি ভ্যানকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এতে ঘটনাস্থলেই পথচারী নাঈম ফকির নিহত ও ভ্যান চালক গুরুতর আহত হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভ্যান চালক বাচ্চু মিয়া হাওলাদারকে উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে রেফার্ড করেন। হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘাতক বাসটিকে কটকস্থল এলাকা থেকে আটক করেছে। আহত ভান চালক কালকিনি উপজেলার পুয়ালী নবগ্রাম এলাকার আঃ হাকিম হাওলাদারের ছেলে।
অপরদিকে একইদিন দুপুরে মহাসড়কের বাটাজোর হাইস্কুলের সম্মুখে লোকাল বাস চাপায় নিহত হয়েছেন মিলন মোল্লা (২০) নামক একজন ভ্যান চালক। মিলন মোল্লা গৌরনদীর কাসেমাবাদ গ্রামের হোসেন মোল্লার পুত্র। দুর্ঘটনার পর ড্রাইভাররা বাস ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। ঘাতক বাস ২টিকে জব্দ করেছে গৌরনদী হাইওয়ে থানা পুলিশ।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ