fbpx
31.3 C
Barisāl
Tuesday, June 22, 2021

হাসপাতাল কর্র্তৃপক্ষের গাফলতি ও হাতুরে চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় মটর মেকানিকের অঙ্গ হানির অভিযোগ

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় লাইফ কেয়ার হাসপাতাল নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে হাতুরে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় ও হাসপাতাল কর্র্তৃপক্ষের গাফলতিতে সুমন হাওলাদার নামে এক মটর মেকানিকের অঙ্গ হানির অভিযোগ পাওয়া গেেেছ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আগৈলঝাড়া উপজেলার বড় বাশাইল গ্রামের ইদ্রিস হাওলাদারের পুত্র সুমন হাওলাদার (৩৫) জীবনযুদ্ধের তাগিদে প্রতিদিনের ন্যায় মটর সাইকেলের ব্রেকের কাজ করার সময় বাম হাতের মধ্যমা আঙ্গুলটি সামান্য কেটে গেলে তাকে (সুমন) স্থানীয় লাইফ কেয়ার হাসপাতাল নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসার জন্য নেয়া হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বা সেখানের কর্তব্যরত হাতুরে চিকিৎসক ফজলুল হক (মেডিকেল সহকারী) কেউই তার পরিবারের কারো সাথে আলাপ না করেই তার আঙ্গুলটি সম্পূর্ন কেটে ফেলেন। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপকভাবে ক্ষোভ দেখা গেলেও হাসপাতাল মালিক স্থানীয় প্রভাবশালী মোঃ আক্তার হোসেনের চাপের মুখে এখন পর্যন্ত সুমনের পরিবার থানায় কোনো অভিযোগ করতে পারেন নি। সুমন হাওলাদার অভিযোগ করে সাংবাদিকদের বলেন, কাজ করার সময় তার বাম হাতের মধ্যমা আঙ্গুলটি সামান্য কেটে গেলে তাকে (সুমন) স্থানীয় লাইফ কেয়ার বেসরকারি হাসপাতালে নেয়া হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বা সেখানের কর্তব্যরত হাতুরে চিকিৎসক ফজলুল হক (মেডিকেল সহকারী) কেউই তার পরিবারের কারো সাথে কোন রকমের আলাপ না করেই তার আঙ্গুলটি সম্পূর্ন কেটে ফেলে। চিকিৎসক ইচ্ছা করলেই তার আঙ্গুলটি সেলাই করেই রাখতে পারতেন বলে তার ধারনা। তিনি আরও বলেন, “আমি আমার এই আঙ্গুলটি নিয়ে অন্যান্য চিকিৎসকদের কাছে গেলে তারা আক্ষেপ করেন এবং ইচ্ছা করলেই আমার আঙ্গুলটি রাখা সম্ভব হত বলে জানান।” তবে এ বিষয়ে চিকিৎসক ফজলুল হক (মেডিকেল সহকারী) অভিযোগটি ভিত্তিহীন দাবী করলেও সুমনের আঙ্গুলটি কাটার আগে তার পরিবারের কাছে থেকে নেয়া কোন অনুমতিপত্র দেখাতে পারেন নি।
এলাকা সূত্রে আরও জানা যায়, ফজলুল হক(মেডিকেল সহকারী) এর সার্জারি করার কোন বৈধতা বা অনুমতিপত্র না থাকলেও হর-হামেসাই যেন তিনি সার্জারি করার দোকান খুলে বসেছেন।
এ ঘটনার পর কথা বলার জন্য লাইফ কেয়ার হাসপাতালের পরিচালক মোঃ আক্তার হোসেনের মুঠোফোনে ফোন করলে, তিনি অভিযোগটি ভিত্তিহীন দাবী করেন ।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ