fbpx
25.2 C
Barisāl
Friday, April 16, 2021

আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট-গোপালগঞ্জ মহাসড়কের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের অবহেলার কারনে সড়ক সংস্কার কাজ না করায় খানাখন্দ ও গর্তে ভরা। ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের চলাচলের চরম দুর্ভোগ।

ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের অবহেলার কারনে বরিশালের আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট-গোপালগঞ্জ মহাসড়কের প্রায় চার কিলোমিটার সড়ক সংস্কার না করায় ঈদুল আযহার যাত্রীদের যানবাহনে চলাচলের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সারা পথ গাড়ীতে যাত্রীরা ভাল আসলেও ওই চার কিলোমিটার সড়কে তাদের ঈদ যাত্রা ম্লান করে দিয়েছে। রাতের অন্ধ্যাকারে চলতে গিয়ে ঘটছে দূর্ঘটনা। মাঝে মধ্যে বৃষ্টি হওয়ায় গর্ত আরো বড় আকার ধারন করছে। কিছু গর্তে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ইট দিয়ে চলাচলের উপযোগী করলেও তা পর্যাপ্ত নয়।
সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) সূত্রে জানা গেছে, বরিশালের গৌরনদী-আগৈলঝাড়া-গোপালগঞ্জ মহাসড়ক খানাখন্দ ও গর্ত হয়ে লোকজন, যানবাহন চলাচলে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। এ কারনে বরিশাল সড়ক ও জনপথ বিভাগ থেকে ১৬ কিলোমিটার সড়ক সংস্কারের জন্য ২০১৮ সালের প্রথম দিকে ২৩ কোটি টাকা ব্যয়ে টেন্ডার আহবান করেন। টেন্ডারে বরিশালের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান এম খান গ্রুপ নামে প্রতিষ্ঠান কাজটি পায়। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান বাইপাসের চার কিলোমিটার বাদে ১২কিলোমিটার সড়কের সংস্কার কাজ শেষ করে। দীর্ঘদিনেও বাইপাসের চার কিলোমিটার সড়ক সংস্কার না হওয়ায় বড় বড় গর্ত হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধের পথে রয়েছে। ঈদুল আযহা উপলক্ষে যাত্রীরা গাড়ীতে করে সারা পথ ভাল আসলেও ওই চার কিলোমিটার সড়কে তাদের সারা পথের যাত্রা ম্লান করে দেয়।
অনেক সময় গাড়ীর যন্ত্রাংশ ভেঙ্গে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। রাতের অন্ধ্যাকারে চলতে গিয়ে ঘটছে অহরহ দূর্ঘটনা। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের অবহেলার কারনে এই চার কিলোমিটার সড়ক সংস্কার কাজ করা হয়নি দীর্ঘদিনেও। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ওই সড়কের চার কিলোমিটারে বড় গর্তে ইট দিয়ে কোন রকমে চলাচলের ব্যবস্থা করলেও তা পর্যাপ্ত নয়। এ ব্যাপারে সওজ উপ-সহকারী প্রকৌশলী এম এ হানিফ বলেন, বৃষ্টির মৌসুম শেষ হলে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কাজ শুরু করবেন। বর্তমানে গাড়ী ও লোকজনের চলাচলের জন্য ঠিকাদার বালু ও ইট দিয়ে গর্ত ভরে দিয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ