fbpx
27.1 C
Barisāl
Monday, April 12, 2021

আগৈলঝাড়ায় শ্রেণী কক্ষে ছাত্রীর সাথে কথা বলতে না দেওয়ায় শিক্ষকের উপর হামলা, হাসপাতালে ভর্তি। মামলার প্রস্তুতি।

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় শ্রেণী কক্ষে ছাত্রীর সাথে কথা বলতে না দেওয়ায় শিক্ষকের উপর হামলা। আহত শিক্ষক হাসপাতালে ভর্তি। মামলার প্রস্তুতি চলছে।
আহত ও হাসপাতাল সূত্রে জানাগেছে, আগৈলঝাড়া উপজেলার রতœপুর ইউনিয়নের ঐচারমাঠ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গত শনিবার সকালে ক্লাস চলাকালিন সময়ে ৫ম শ্রেণী কক্ষে ঢুকে তমা বাড়ৈ নামে এক ছাত্রীকে খুজতে থাকে বখাটেরা। এ সময় ক্লাস শিক্ষক তাপস মাখন দেরুরী তাদের কাছে তমাকে খোঁজার কারন জানতে চায়। তমা দোয়েল গার্স হোষ্টেলের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী উপজেলার বারপাইকা গ্রামের মিলন বাড়ৈর মেয়ে। ঐচারমাঠ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তাপস মাখন দেরুরীকে বখাটেরা স্কুল থেকে চলে যাবার সময় শিক্ষককে হুমকি দিয়ে যায়। এঘটনায় শনিবার স্কুল ছুটির পর শিক্ষক বাড়ি ফেরার পথে তাপস মাখন দেরুরীর উপর হামলা চালায় ঐচারমাঠ এলাকার জুরান বেপারীর ছেলে আকাশ বেপারী, সুনিল হালদারে ছেলে সৈকত হালদার, উপেন বাড়ৈর ছেলে হৃদয় বাড়ৈ, মনরঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে নিউটন বিশ্বাসসহ ৫-৬ জনের একটি দল পথরোধ করে তাপস মাখন দেরুরীর উপর হামলা চালায়। এসময় তার ডাকচিৎকারে স্থানিয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে গুরুতর অবস্থায় শিক্ষককে আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এঘটনায় আহত শিক্ষকের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।
সরেজমিনে প্রত্যক্ষর্দশি সুনীল হালদারের ছেলে সাগর হালদার জানান, ঐচারমাঠ দোয়েল গালর্স হোষ্টেলের ছাত্রী তমা ও অংকিতা যৌন নির্যাতানের শিকার হওয়ার ঘটনা ওই স্কুল ছাত্রী তমার কাছে জানতে চাওয়ায় শিক্ষক তাপস মাখন দেরুরী অভিযুক্তদের বাধা দেয়। এ কারনে তার উপর হামলা হয়েছে।
এব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিরাজুল হক তালুকদার জানান, আহত শিক্ষক তাপস মাখন দেরুরীকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে চিকিৎসার খোঁজ খবর নিয়েছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে, তাকে আইনি সহয়তা করা হবে।
এব্যাপারে আগৈলঝাড়া থানা ওসি তদন্ত আকরাম হোসেন বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পরিবারের কাছে লিখিত অভিযোগ চেয়েছি, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ