fbpx
31.3 C
Barisāl
Tuesday, June 22, 2021

জব্দ করা জাল বিক্রি করেছে পুলিশ !

বরিশাল নিউজ।। প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষার নিষেধাজ্ঞার ২২ দিনে জেলেদের আটক করে উৎকোচের বিনিময়ে ছেড়ে দেয়াসহ নানা অভিযোগে জেলার হিজলা থানার চার পুলিশ সদস্যকে ক্লোজড করা হয়েছে। একই সাথে হিজলা সার্কেলের এএসপি কামরুল আহসানকে অভিযোগুলো তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
জেলা পুলিশ সুপার মোঃ সাইফুল ইসলাম মঙ্গলবার বিকেলে প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন । সূত্র মতে, অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ইলিশ ধরার জব্দ করা জাল বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা আত্মসাতেরও অভিযোগ রয়েছে। প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সদস্যরা হলেন-হিজলা থানার এসআই মোঃ মহিউদ্দিন, এএসআই সাইফুল ইসলাম, সরোয়ার বশির ও কনস্টবল মাহাতাব হোসেন।
পুলিশ সুপার মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, বিশেষ কারণে পুলিশের এক এসআই, দুই এএসআই ও এক কনস্টবলকে ক্লোজড করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো তদন্ত চলছে। তদন্তাধীন বিষয় নিয়ে কথা বলা ঠিক নয়। তদন্তে সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
হিজলা থানার একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ অক্টোবর থানা চত্বরে অনুষ্ঠিত ওপেন হাউজ ডে-তে জেলা পুলিশ সুপারের কাছে স্থানীয় বাসিন্দারা ওই চার পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলে ধরেন। সেক্ষেত্রে ধারণা করা হচ্ছে, ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাদের এই শাস্তি দেওয়া হলো।

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পর্কিত সংবাদ